1. m_prodhan@yahoo.com : Mahabub Alam Prodhan : Mahabub Alam Prodhan
  2. bpcitaly@gmail.com : Md abdul Wadud : Md abdul Wadud
  3. rasel1391992@gmail.com : Rasel Ahmed : Rasel Ahmed
  4. currentshomoynews@gmail.com : shomoynews1 :
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন

গত দুই মাসে ৬ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বিদেশী প্রতারক চক্র

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২২ জুলাই, ২০২০
  • ১২৬ বার পঠিত

ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীতে দেশী বিদেশী জাল টাকা , জাল ডলার ব্যবসায়ী সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সদস্যরা অনেকটাই সক্রিয় হয়ে উঠতে শুরু করেছে। এই সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সদস্যদেরকে ধরার জন্য আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা রাজধানীর কুরবানীর পশুর ১৩টি হাঁটসহ সহ সারা দেশে জোরদার সাড়াশি অভিযানে নেমেছে।

এলক্ষে তথ্য যোগাযোগ মাধ্যম ”ফেসবুকে” পরিচয়ের সূত্র ধরে উপহার পাঠানোর নামে গত দুই মাসে ৫ থেকে ৬ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে নাইজেরিয়ান একটি প্রতারক চক্র। এদের মধ্যে বাংলাদেশি রাহাত আরা খানম ওরফে ফারজানা মহিউদ্দিন নামে ভুয়া একজন কাস্টমস কর্মকর্তা ও রয়েছে। এই চক্রের ১২ বিদেশি নাগরিক ও একজন বাংলাদেশি ভুয়া নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

বিদেশী এই প্রতারক চক্রের সদস্যরা পরস্পর যোগসাজশে প্রতারণার মাধ্যমে সারাদেশ থেকে প্রায় শতাধিক ভিকটিমের কাছ থেকে ৫ থেকে ৬ কোটি টাকা গত ২ মাসের ব্যবধানে কৌশলে হাতিয়ে নিয়েছে বলে জানিয়েছে সিআইডি।

আজ বুধবার রাজধানীর মালিবাগস্থ সিআইডি সদর দফতরে আয়োজিত এক প্রেসব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান, সিআইডি এডিশনাল ডিআইজি শেখ রেজাউল হায়দার। ধৃত সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সদস্যরা হলো, নাইজেরিয়ান নান্দিকা ক্ল্যামেন্ট চাকেনগুয়ে (৩২), ক্লিটাস আচুনা (৩১), ওনইয়ানক্লুভ টাইমটি চিনোংড়ে (৩০), একিনি উইজডম (৩০), চিগোজি (৩০), এভেন্ডে গ্রাব্রিয়েল ওবুনা (৩০), সেলাস্তিন পেট্রিক ওবিয়াজুলু (৩০), মোরডি নানদি কোলিন্স (৩০), ওরডু চুকেয়দু সামি (৩০), এন্দুবুয়েকোন সমেয়ানা (৩০), এনজেরেম প্রিসিয়াস ইকেমে (৩০), এনওক উইজডম চিকওয়াদো (৩০) এবং বাংলাদেশি রাহাত আরা খানম ওরফে ফারজানা মহিউদ্দিন (ভুয়া কাস্টমস কর্মকর্তা) প্রমুখ।

প্রেসব্রিফিংয়ে সিআইডি এডিশনাল ডিআইজি শেখ রেজাউল হায়দার সাংবাদিকদেরকে বলেন, এই সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সদস্যদের হাতে প্রতারণার শিকার একজন ভিকটিমের অভিযোগের সূত্র ধরে সিআইডি তাদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

এই চক্রের সদস্যরা অভিনব কায়দায় সাধারণত বিপরিত লিঙ্গের ব্যক্তিদের সঙ্গে প্রথমে ফেসবুকে বন্ধুত্ব তৈরি করে। বন্ধুত্বের এক পর্যায়ে ক্যাথরিন কোলেন সোফিয়া নামক একটি তথাকথিত ম্যাসেঞ্জার আইডি থেকে গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্টসহ পার্সেল গিফট করার প্রস্তাব দেয় এবং পরবর্তীতে মেসেঞ্জারে এই সব মূল্যবান সামগ্রীর এয়ার লাইন বুকিংয়ের ডকুমেন্ট পাঠায়। এরপর এসব গিফট বক্সে কয়েক মিলিয়ন ডলারের মূল্যবান সামগ্রী রয়েছে বলে তারা ভিকটিমকে অবহিত করে এবং তা চট্টগ্রাম এয়ারপোর্ট কাস্টমস গুদাম থেকে রিসিভ করতে বলে।

সিআইডির এই কর্মকর্তা সাংবাদিকদেরকে বলেন, এই সময় তাদের গুরুত্বপূর্ণ সহযোগী গ্রেফতাকৃত রাহাত আরা খানম ওরফে ফারজানা মহিউদ্দিন নিজেকে কাস্টমস কমিশনার পরিচয় দিয়ে ভিকটিমকে মূল্যবান গিফট গ্রহণসহ শুল্ক বাবদ ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা কয়েকটি ব্যাংক একাউন্টে পরিশোধের জন্য চাপ দেয়। গিফটি রিসিভ না করলে আইনি জটিলতার ভয় দেখানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে শেখ রেজাউল হায়দার জানান, ভুয়া কাস্টমস অফিসারের বারবার চাপের কারণে ভিকটিম তাদের দেওয়া বিভিন্ন ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ৩ লাখ ৭৩ হাজার টাকা জমা দেয়। একইভাবে আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে প্রতারণার মাধ্যমে সারাদেশ থেকে প্রায় শতাধিক ভিকটিমের কাছ থেকে ৫ থেকে ৬ কোটি টাকা গত ২ মাসের ব্যবধানে হাতিয়ে নিয়েছে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিশ্চিত হয়েছে সিআইডি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সিআইডি এডিশনাল ডিআইজি শেখ রেজাউল হায়দার জানান, গ্রেফতারকৃত নাইজেরিয়ান বিদেশিরা দীর্ঘ দিন ধরে বাংলাদেশে অবস্থান করে এ ধরণের প্রতারণা করে আসলেও এদেশে তাদের অবস্থানের বৈধ কোনও কাগজপত্র এবং পাসপোর্ট তারা দেখানে পারেনি।

আসামিদের বিরুদ্ধে ডিএমপির পল্লবী থানায় একটি মামলা হয়েছে এবং ফরেনার্স কন্ট্রোল অ্যাক্টে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান সিআইডির এই কর্মবর্তা।

এছাড়া সম্প্রতি সময়ে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) রাজধানীতে অপর একটি জায়গায় অভিযান চালিয়ে জাল টাকা তৈরী সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের ৪ সক্রিয় সদস্যকে ইতোপূর্বে আটক করেছিল। ওই বিদেশী প্রতারক চক্রের সদস্যরা রাজধানী থেকে কয়েক কোটি টাকা কৌশলে হাতিয়ে নিয়েছিল বলে তখন এক প্রেসব্রিফিংয়ে সিআইডি গনমাধ্যম কর্মীদেরকে জানিয়েছিল।

এদিকে, গত ১৮ জুলাই রাজধানীর বংশাল ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে মো. সাইফুল ইসলাম ওরফে লামু (৩২), মো. রুবেল (২৮) এবং মো. আলম হোসেন (২৮)। নামে তিন ব্যক্তিকে আটক করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ লালবাগ বিভাগ। আটককৃতদের কাছ থেকে বাংলাদেশি ১০০০ ও ৫০০ টাকার নোটের মোট ৩৫ লাখ জাল টাকা এবং জাল টাকা তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়।

পরবর্তীতে ডিএমপির বংশাল থানায় দায়ের করা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তিন আসামিকে আদালতে হাজির পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। আবেদনের পর ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মিল্লাত হোসেন শুনানী শেষে এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুরের আদেশ দেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

পুরনো সংবাদ পড়ুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১