1. m_prodhan@yahoo.com : Mahabub Alam Prodhan : Mahabub Alam Prodhan
  2. bpcitaly@gmail.com : Md abdul Wadud : Md abdul Wadud
  3. rasel1391992@gmail.com : Rasel Ahmed : Rasel Ahmed
  4. currentshomoynews@gmail.com : shomoynews1 :
সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন

ফ্রান্স আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন কয়েস বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে এগিয়ে যেতে চান।

রাসেল আহমেদ
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৮ আগস্ট, ২০২০
  • ১৬৯ বার পঠিত

***আমৃত্যু বঙ্গবন্ধুর আদর্শ’ই লালন করে যাব***
– (দেলোয়ার হোসেন কয়েছ)
( ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ফ্রান্স আওয়ামী লীগ)
——————————————————————–

‘যতদিন বেঁচে থাকব ততদিন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ই লালন করে যাব, বঙ্গবন্ধু সুখী-সমৃদ্ধশালী যে বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন এবং সে বাংলাদেশ গড়তে জননেত্রী শেখ হাসিনা যে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তাতে প্রবাস থেকে যতটুকু সহযোগিতা করা প্রয়োজন তা করতে জীবনের সর্বোচ্চ দিয়ে চেষ্টা করে যাব।’

ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) দিলওয়ার হোসেন কয়েছ বঙ্গবন্ধুর প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করতে গিয়ে আমাদের কথার সাথে আলাপকালে এমন কথাই বলেন।

কয়েছ প্রায় তিন যুগেরও বেশি সময় ধরে বসবাস করছেন ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে। আর ফ্রান্স আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকে যুক্ত রয়েছেন দলটির সাথে। এখানকার বাংলাদেশি কমিউনিটিতে তার জনপ্রিয়তা ঈর্ষণীয় বিশেষ করে তরুণদের কাছে।

কয়েছ বলেন- শুরুর দিকে ফ্রান্সের জীবন বেশ কষ্টকর আর কঠিন ছিল, ছিল আর্থিক টানাপোড়েন তবে দলের প্রতি ভালোবাসার কোন কমতি ছিলনা ।নিয়মিত দলের যেকোনো অনুষ্ঠান আয়োজনে অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সাথে আমিও সক্রিয় ছিলাম। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত করতে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সবসময় উৎসাহ দিয়ে এসেছি।

ফ্রান্সের বাংলাদেশি তরুণদের আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ অনুসরণের আহ্বান জানাই বিশেষ করে তারা যেন বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী পড়ে কিছু শিখতে পারে। আমি জানি,অনেক তরুণ প্রবাস জীবন শেষ করে এক সময় বাংলাদেশে গিয়ে রাজনীতিতে আবার সক্রিয় হয়।
যদি তারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালন করে বিশেষ করে শোষণের বিরুদ্ধে যে লড়াই আর দেশ গঠনে তরুণ সমাজের মে ভূমিকার কথা বঙ্গবন্ধু বলে গিয়েছেন তা যদি তারা পালন করতে পারে তবে দেশ ও জাতি অনেক উপকৃত হবে।

ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে তার অধিষ্ঠিত থাকার কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে তা আর হয়ে ওঠেনি এ নিয়ে তার কোন আফসোস আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন- রাজনীতিতে নেতৃত্ব একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যে কোন রাজনীতিবিদের জন্য এটা আমি মনে করি। কারণ, সেখানে তিনি তার মেধা ও শ্রম দিয়ে দলকে যেমন গতিশীল করতে পারেন তেমনি নতুন কর্মী তৈরিতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেন। তবে ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ নিয়ে যদি আমাকে জিজ্ঞেস করেন তাহলে বলতে হবে এখানে আমার থেকে কর্মীদের চাওয়াই বেশি ছিল কারণ তারা আমাকে অনেক ভালোবাসেন।

আমি বিশ্বাস করি – একজন কয়েছ ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে থাকলে যেমন কর্মীরা আমাকে ভালোবাসেন তেমনি একজন সাধারণ কর্মী হলেও তারা আমাকে ভালোবাসেন।
শুধু এটুকুই বলবো – পদ-পদবী নয় কর্মীরাই আমার কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। তাদের ভালবাসাই আমার কাছে বড় পাওয়া।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,২০১৬ সালের সম্মেলন জামাত-বিএনপি’র দ্বারা সৃষ্ট গন্ডগোলের কারণে পন্ড হয়।এরপর ফ্রান্সের আওয়ামী লীগ দুই গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়ে। পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধুকন্যা ফ্রান্স সফরকালে আমাদের দুই গ্রুপকে তার হোটেলের রুমে ডেকে নেন। এসময় তিনি আমার মাথায় হাত বুলিয়ে বলেন, ‘কয়েছ তুমি এখনো অনেক তরুণ সামনে তোমার অনেক সময় আছে তুমি আগামীতে ফ্রান্স আওয়ামী লীগের হাল ধরবে।’
আমার জীবনে এর থেকে বড় পাওনা আর কি হতে পারে বলেন?

এই কথাটা আগেও বলেছি, এখনও বলছি আর বারবার দৃঢ় কন্ঠে বলব- আমি আমৃত্যু বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালন-পালন করে যাব।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

পুরনো সংবাদ পড়ুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০