1. m_prodhan@yahoo.com : Mahabub Alam Prodhan : Mahabub Alam Prodhan
  2. bpcitaly@gmail.com : Md abdul Wadud : Md abdul Wadud
  3. rasel1391992@gmail.com : Rasel Ahmed : Rasel Ahmed
  4. currentshomoynews@gmail.com : shomoynews1 :
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৫৯ অপরাহ্ন

রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার, ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৫ জুলাই, ২০২০
  • ২৯ বার পঠিত

মেট্রোরেলের প্রকল্পের কাজে জড়িত ৭৬ শ্রমিকের ভুয়া করোনা রিপোর্ট দেয়ার অভিযোগে রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা শাখার ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এমডি) মিজানুর রহমানকে গ্রেফতার করেছে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ।

শুক্রবার গোপালগঞ্জের মনিক্ষির গ্রামের মিজানুর রহমানের খালুর বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। রাতে তাকে ঢাকায় নিয়ে এসে থানায় রেখে জিঞ্জাসাবাদ করার জন্য আজ শনিবার সকালে তাকে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আদালতে পাঠায় উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ।আজ শুনানী শেষে বিঞ্জ আদালত ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

এদিকে, আজ দুপুরে ডিএমপির উত্তরা পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) তপন চন্দ্র সাহা গনমাধ্যমকে গ্রেফতার ও রিমান্ড মঞ্জুরের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ওসি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। সে মেট্রোরেলের ৭৬ শ্রমিকের ভুয়া করোনা রিপোর্ট দিয়েছিল। গ্রেফতারকৃত আসামি মিজানুর রহমানকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আজ সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি। ধৃত মিজানুর রহমান উক্ত মামলার ৩ নম্বর এজাহারভুক্ত আসামী ।

পুলিশও মামলা সুত্রে জানা যায়, মেট্রোরেল প্রকল্পে কর্মরত ৭৬ কর্মীকে ভুয়া করোনা রিপোর্ট দেয়া অভিযোগে গত ২০ জুলাই রাতে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ করিমসহ হাসপাতালের কয়েকজনের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। মেট্রোরেলের একটি সাব-কন্ট্রাক্টর প্রতিষ্ঠানের পক্ষে রেজাউল করীম বাদী হয়ে এই মামলাটি করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, মেট্রোরেলে কর্মরত ৭৬ কর্মীর করোনার পরীক্ষা করা হয় রিজেন্ট হাসপাতালে। এ জন্য পরীক্ষাপ্রতি সাড়ে তিন হাজার করে টাকা নেয়া হয়। কিন্তু টেস্ট না করেই ভুয়া রিপোর্ট দেয়ায় কর্মীদের মধ্যে করোনার সংক্রমণ বেড়েছে।মামলার প্রধান আসামি মো: সাহেদকে গত ১৫ জুলাই ভোরে সাতক্ষীরা জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে গ্রেফতার করে র‍্যাব।

উল্লেখ্য, গত ৬ জুলাই রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা শাখায় অভিযান চালায় এলিট ফোর্স র‍্যাব। অভিযানে র‍্যাব প্রমাণ পায়- রিজেন্টে করোনা পরীক্ষা না করেই ভুয়া রিপোর্ট দেয়া হতো। এ জন্য হাসপাতালটির মিরপুরের শাখাসহ উত্তরা শাখা সিলগালা করে দেয়া হয়। পরবর্তীতে করোনার ভুয়া রিপোর্ট আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা বিষয়ে প্রতারণা করায় হাসপাতালটির চেয়ারম্যান সাহেদ করিমসহ ১৭ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়।মিজানুর রহমান ওই মামলার তিন নম্বর এজাহারভুক্ত পলাতক আসামী।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

পুরনো সংবাদ পড়ুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০