1. m_prodhan@yahoo.com : Mahabub Alam Prodhan : Mahabub Alam Prodhan
  2. bpcitaly@gmail.com : Md abdul Wadud : Md abdul Wadud
  3. rasel1391992@gmail.com : Rasel Ahmed : Rasel Ahmed
  4. currentshomoynews@gmail.com : shomoynews1 :
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৫:৩৫ অপরাহ্ন

লা লিগার শীর্ষস্থান এখন রিয়ালের দখলে

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২১ জুন, ২০২০
  • ১৭১ বার পঠিত

জমে উঠেছে স্পেনের পেশাদার ফুটবল লিগ ‘লা লিগা’। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ পয়েন্টে সমানে সমান। তবে ‘হেড-টু-হেড’ ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় পয়েন্টের শীর্ষ স্থানে উঠে এসেছে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা।

রোববার (২১ জুন) দিবাগত রাতে নিজেদের ঘরের মাঠে রিয়াল সোসিয়েদাদকে ২-১ গোলে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। খেলতে নেমে রিয়ালের আক্রমণাত্মক ফুটবলের কাছে দিশেহারা হয়ে গিয়েছিল সোসিয়েদাদ। তবে প্রথমার্ধে গোলমুখ নিরাপদ রাখতে সমর্থ হয় স্বাগতিকরা।

তবে দ্বিতীয়ার্থে আর ঠেকিয়ে রাখতে পারেনি রিয়ালকে। রামোস ও বেনজেমার গোলে জয় পেয়ে যায় রিয়াল। এই জয়ে শীর্ষে থাকা বার্সেলোনাকে ধরে ফেলল লস ব্ল্যাঙ্কোসরা।

গত শুক্রবার সেভিয়ার সঙ্গে গোলশুন্য ড্র করে রিয়ালকে শীর্ষে আসার পথ খুলে দিয়েছিল বার্সেলোনাই। আর সেই সুযোগের পূর্ণ সদ্ব্যবহার করে ফেলেছে রিয়াল। শীর্ষে উঠতে জয় পাওয়াটাই খুবই দরকার ছিল তাদের। আর সেটাই করে দেখিয়েছে জিদানের শিষ্যরা।

প্রথম গোল পেতে রিয়ালকে অপেক্ষায় থাকতে হয় ৫০তম মিনিট পর্যন্ত। আর প্রথম গোলটি আসে পেনাল্টি থেকে। দারুণভাবে গোলমুখে এগিয়ে যেতে থাকা ভিনিসিয়াস জুনিয়রকে নিজেদের বক্সে ফাউল করে বসেন সোসিয়েদাদের দিয়েগো লোরেন্তে। সঙ্গে সঙ্গে লোরেন্তেকে হলুদ কার্ড দেখানোর পাশাপাশি পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। তবে সিদ্ধান্ত ঘোষণার আগে ভিএআর’র সহায়তা নেন রেফারি। সুযোগটা দারুণভাবে কাজে লাগান রিয়াল অধিনায়ক রামোস।

লা লিগার ইতিহাসে ডিফেন্ডার হিসেবে সর্বোচ্চ গোলের মালিক এখন রামোস। এখন পর্যন্ত লা লিগায় রিয়ালের জার্সিতে তার গোলসংখ্যা ৬৮টি। এর আগে এইবারের বিপক্ষে গোল করে তিনি রোনাল্ডো কোয়েমানের কীর্তি (৬৭ গোল) ছুঁয়েছিলেন। এই মৌসুমে এখন পর্যন্ত রিয়ালের জার্সিতে ৯ গোল করেছেন রামোস, এর মধ্যে লা লিগায় ৭টি।

খেলার ৭০তম মিনিটে ব্যবধান দিগুণ করেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা রিয়ালের করিম বেনজেমা। কাঁধ দিয়ে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে পায়ে নামিয়ে সঙ্গে সঙ্গে রকেট গতিতে বল জালে জড়িয়ে দেন ফরাসি এই স্ট্রাইকার। শুরুতে হ্যান্ডবলের আবেদন করেন স্বাগতিক দলের খেলোয়াড়রা। তবে ভিএআর’র সহায়তায় গোলের সিদ্ধান্ত দেন রেফারি।

এরপরও নিরাপদ ছিল না রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচের ৮৩তম মিনিটে গোল পেয়ে যায় সোসিয়েদাদ। গোলটি আসে মিকেল মেরিনোর পা থেকে। রবের্তো লোপেজ দারুণ এক ক্রস দেন ব্যাক পোস্টে থাকা মোরেনোকে। বল খুব শান্তভাবে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আলতো টোকায় লক্ষ্যভেদ করেন তিনি। বাকি সময়ে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি কোনো দলই।

বার্সা-রিয়াল দুই দলেরই আর আটটি করে ম্যাচ বাকি আছে। উভয় দল এভাবে সমান পয়েন্টে থেকে লিগ শেষ করলে কপাল পুড়বে বার্সেলোনার। কারণ গত মার্চে মুখোমুখি দেখায় রিয়ালের বিপক্ষে হারতে হয়েছিল তাদের। ৩০ ম্যাচ শেষে উভয় দলেরই পয়েন্ট এখন ৬৫। অন্যদিকে সমান সংখ্যক ম্যাচে ৪৭ পয়েন্ট নিয়ে ছয়ে আছে সোসিয়েদাদ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

পুরনো সংবাদ পড়ুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১